জে’নে নিন,চিনির বিকল্প হিসেবে কী কী খাওয়া যায়?

খাদ্যতালিকা থেকে চিনি বাদ দেওয়ার পরামর্শ আজকাল প্রায় সব পুষ্টিবিদ আর ডাক্তারই দিয়ে থাকেন৷ কিন্তু সমস্যা হচ্ছে, ব্যাপারটা শুনতে যত সহজ, কার্যক্ষেত্রে পালন করাটা মোটেই ততটা সহজসাধ্য হয় না৷ বিশেষ করে যাঁরা মিষ্টি খেতে খুব পছন্দ করেন, তাঁরা দূরে থাকার শত চেষ্টা করলেও মাঝে মাঝে তীব্র ইচ্ছে জেগে ওঠে এবং তার ফাঁদে পা দিয়েই যেটা খাওয়া বারণ সেটাই বেশি করে খেয়ে ফেলে মানুষ৷ কিন্তু একটু বুদ্ধি থাকলেই চিনির মায়া কাটিয়ে উঠতে পারবেন৷ জানতে চান, সেটা কীভাবে সম্ভব?

মনে রাখবেন, আপনি মিষ্টি থেকে যত দূরে থাকতে চাইবেন, তত তীব্র ইচ্ছে হবে তা খাওয়ার৷ তাই চিজ়কেক, রাবড়ি বা রসমালাই থেকে দূরে থাকার প্রচেষ্টাটা আপনাকেই করতে হবে৷ বাকি যে ক’টি বিকল্প আছে, সে ক’টির হদিশ দেওয়া রইল৷

তাজা ফল: আপেল, আঙুর, কলা, বেদানার মতো ফলগুলি এমনিতেই মিষ্টি৷ খুব মিষ্টি খাওয়ার ইচ্ছে করলে ফল খেতে পারেন৷ ফলের রস নয়, গোটা ফল চিবিয়ে খাওয়ার অভ্যেস তৈরি করুন৷ তাতে প্রয়োজনীয় ফাইবারটাও আপনার শরীরে ঢুকবে৷

বাদাম ও বীজ: আমন্ড, কাজু, আখরোটের মতো বাদামের পাশাপাশি কুমড়ো, তিসি ইত্যাদির বীজ রাখুন রোজের খাদ্যতালিকায়৷ এগুলির প্রভাবে আপনার পেট বেশিক্ষণ ভরে থাকবে৷ আপনার সিরিয়ালের সঙ্গে খেতে পারেন এগুলি৷ তাতে বাড়তি চিনির প্রয়োজনীয়তা থাকবে না৷

ফ্লেভার মিশ্রিত জল: যাঁরা মিষ্টি খেতে খুব ভালোবাসেন এবং সারা দিনের যখন-তখন মিষ্টি কিছু খাওয়ার ইচ্ছে হয়, তাঁদের জন্য আদর্শ ডিটক্স ওয়াটার বা ফ্লেভারড ওয়াটার৷ এক বোতল জলে মিশিয়ে নিন আপনার পছন্দের ফল৷ স্ট্রবেরি, আঙুর, আপেল, তরমুজ, পুদিনা, লেবু যা খুশি মেশাতে পারেন৷ এক রাত ফ্রিজে রাখুন৷ পরদিন জলটা ছেঁকে পান করুন৷ সারাদিনে অল্প অল্প করে চুমুক দিয়ে খেলে আপনার মিষ্টি খাওয়ার তীব্র ইচ্ছে নিশ্চিতভাবেই কমে যাবে৷

গুড়: চিনির চেয়ে গুড় অনেকাংশেই কম প্রসেসড৷ তাই আখের রস জ্বাল দিয়ে তৈরি করা গুড় অল্পবিস্তর আপনার রান্নায়, চাটনিতে ব্যবহার করতে পারেন৷ নতুন গুড়ের মিষ্টি খাওয়াও অনেক বেশি স্বাস্থ্যকর৷ চিনির রসে ডোবানো ভাজা মিষ্টির চেয়ে গুড়ের সন্দেশ বা রসগোল্লা নিশ্চিতভাবেই অনেক ভালো অপশন৷ গুড় থেকে তৈরি বাদামি চিনিও খেতে পারেন৷

মধু: মধুতে ক্যালশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম আর পটাশিয়ামের মতো মিনারেল থাকে, প্রতিটিরই অনেক গুণ আছে৷ পুষ্টিগুণের দিক থেকেও এটি অত্যন্ত উল্লেখযোগ্য৷ তাই চিনির বিকল্প হিসেবে আপনার পানীয়ে মধু ব্যবহার করতেই পারেন৷

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*